ই- বিরামপুর
 
আমরা কি বিরামপুর কে জেলা হিসাবে পেতে পারি? আপনার মতামত প্রদান করুন।
 


Comments

16/07/2012 10:02pm

Thank you for data

Reply
13/03/2013 10:48am

Tnx to u, 4 ur comment.

Reply
Md. Zobayer
16/01/2013 2:41pm

মোদের দাবি একটাই,
বিরামপুরে জেলা চাই|

Reply
A.Z. Sujon
12/08/2014 4:37pm

মোদের দাবি একটাই,
বিরামপুরে জেলা চাই|

Reply
Md.Zobayer ( LL.B. Stamford University BD.)
16/01/2013 2:51pm


বিরামপুর, হাকিমপুর, ঘোড়াঘাট ও নাবাবগঞ্জ বাসির প্রাণের দাবি বিরামপুর জেলা চাই।

জেলা সদর হতে ৫৬ কিঃমিঃ দক্ষিণে প্রমত্ত যমুনার এক শাখা নদীর কোল ঘেঁষে বিরামপুর উপজেলার অবস্থান। বিরামপুর থানা সৃষ্টির পূর্বে হাকিমপুর, নবাবগঞ্জ ও ফুলবাড়ী থানার সমন্বয়ে এ অঞ্চল পরিচালিত হত। কথিত আছে সম্রাট আকবরের সময় বাংলার বারো ভুঁইয়াদের মধ্যে পাতরদাস নামক এক শক্তিশালী রাজা ছিলেন। তাঁর রাজধানী ছিল এই এলাকায়। রাজা পাতরদাস মোগল সেনাপতি বৈরাম খাঁর নিকট যুদ্ধে পরাজয় বরণ করেন। সেনাপতি বৈরাম খাঁর নামে এই এলাকার নাম হয় বিরামপুর।
নবাবগঞ্জ ও হাকিমপুর থানার ২টি করে ও ফুলবাড়ী থানার ৩টি ইউনিয়নের সমন্বয়ে ১৯৮১ সালের ৭ জুন বিরামপুর থানা গঠিত হয়। ১৯৮৩ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর তারিখে বিরামপুর থানাকে উপজেলায় উন্নীত করা হয়। ১৯৯০ সালে বিরামপুর উপজেলা সদরকে পৌরসভা ঘোষণা করা হয়। পৌরসভার কার্যক্রম শুরু হয় ১৫ জুন, ১৯৯৫ তারিখে।

Reply
Md.Zobayer ( LL.B. Stamford University BD.)
16/01/2013 2:51pm


বিরামপুর, হাকিমপুর, ঘোড়াঘাট ও নাবাবগঞ্জ বাসির প্রাণের দাবি বিরামপুর জেলা চাই।

জেলা সদর হতে ৫৬ কিঃমিঃ দক্ষিণে প্রমত্ত যমুনার এক শাখা নদীর কোল ঘেঁষে বিরামপুর উপজেলার অবস্থান। বিরামপুর থানা সৃষ্টির পূর্বে হাকিমপুর, নবাবগঞ্জ ও ফুলবাড়ী থানার সমন্বয়ে এ অঞ্চল পরিচালিত হত। কথিত আছে সম্রাট আকবরের সময় বাংলার বারো ভুঁইয়াদের মধ্যে পাতরদাস নামক এক শক্তিশালী রাজা ছিলেন। তাঁর রাজধানী ছিল এই এলাকায়। রাজা পাতরদাস মোগল সেনাপতি বৈরাম খাঁর নিকট যুদ্ধে পরাজয় বরণ করেন। সেনাপতি বৈরাম খাঁর নামে এই এলাকার নাম হয় বিরামপুর।
নবাবগঞ্জ ও হাকিমপুর থানার ২টি করে ও ফুলবাড়ী থানার ৩টি ইউনিয়নের সমন্বয়ে ১৯৮১ সালের ৭ জুন বিরামপুর থানা গঠিত হয়। ১৯৮৩ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর তারিখে বিরামপুর থানাকে উপজেলায় উন্নীত করা হয়। ১৯৯০ সালে বিরামপুর উপজেলা সদরকে পৌরসভা ঘোষণা করা হয়। পৌরসভার কার্যক্রম শুরু হয় ১৫ জুন, ১৯৯৫ তারিখে।

Reply
Md.Zobayer ( LL.B. Stamford University BD.)
16/01/2013 2:51pm


বিরামপুর, হাকিমপুর, ঘোড়াঘাট ও নাবাবগঞ্জ বাসির প্রাণের দাবি বিরামপুর জেলা চাই।

জেলা সদর হতে ৫৬ কিঃমিঃ দক্ষিণে প্রমত্ত যমুনার এক শাখা নদীর কোল ঘেঁষে বিরামপুর উপজেলার অবস্থান। বিরামপুর থানা সৃষ্টির পূর্বে হাকিমপুর, নবাবগঞ্জ ও ফুলবাড়ী থানার সমন্বয়ে এ অঞ্চল পরিচালিত হত। কথিত আছে সম্রাট আকবরের সময় বাংলার বারো ভুঁইয়াদের মধ্যে পাতরদাস নামক এক শক্তিশালী রাজা ছিলেন। তাঁর রাজধানী ছিল এই এলাকায়। রাজা পাতরদাস মোগল সেনাপতি বৈরাম খাঁর নিকট যুদ্ধে পরাজয় বরণ করেন। সেনাপতি বৈরাম খাঁর নামে এই এলাকার নাম হয় বিরামপুর।
নবাবগঞ্জ ও হাকিমপুর থানার ২টি করে ও ফুলবাড়ী থানার ৩টি ইউনিয়নের সমন্বয়ে ১৯৮১ সালের ৭ জুন বিরামপুর থানা গঠিত হয়। ১৯৮৩ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর তারিখে বিরামপুর থানাকে উপজেলায় উন্নীত করা হয়। ১৯৯০ সালে বিরামপুর উপজেলা সদরকে পৌরসভা ঘোষণা করা হয়। পৌরসভার কার্যক্রম শুরু হয় ১৫ জুন, ১৯৯৫ তারিখে।

Reply
Md.Zobayer ( LL.B. Stamford University BD.)
16/01/2013 2:52pm


বিরামপুর, হাকিমপুর, ঘোড়াঘাট ও নাবাবগঞ্জ বাসির প্রাণের দাবি বিরামপুর জেলা চাই।

জেলা সদর হতে ৫৬ কিঃমিঃ দক্ষিণে প্রমত্ত যমুনার এক শাখা নদীর কোল ঘেঁষে বিরামপুর উপজেলার অবস্থান। বিরামপুর থানা সৃষ্টির পূর্বে হাকিমপুর, নবাবগঞ্জ ও ফুলবাড়ী থানার সমন্বয়ে এ অঞ্চল পরিচালিত হত। কথিত আছে সম্রাট আকবরের সময় বাংলার বারো ভুঁইয়াদের মধ্যে পাতরদাস নামক এক শক্তিশালী রাজা ছিলেন। তাঁর রাজধানী ছিল এই এলাকায়। রাজা পাতরদাস মোগল সেনাপতি বৈরাম খাঁর নিকট যুদ্ধে পরাজয় বরণ করেন। সেনাপতি বৈরাম খাঁর নামে এই এলাকার নাম হয় বিরামপুর।
নবাবগঞ্জ ও হাকিমপুর থানার ২টি করে ও ফুলবাড়ী থানার ৩টি ইউনিয়নের সমন্বয়ে ১৯৮১ সালের ৭ জুন বিরামপুর থানা গঠিত হয়। ১৯৮৩ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর তারিখে বিরামপুর থানাকে উপজেলায় উন্নীত করা হয়। ১৯৯০ সালে বিরামপুর উপজেলা সদরকে পৌরসভা ঘোষণা করা হয়। পৌরসভার কার্যক্রম শুরু হয় ১৫ জুন, ১৯৯৫ তারিখে।

Reply
Md.Zobayer ( LL.B. Stamford University BD.)
16/01/2013 2:52pm


বিরামপুর, হাকিমপুর, ঘোড়াঘাট ও নাবাবগঞ্জ বাসির প্রাণের দাবি বিরামপুর জেলা চাই।

জেলা সদর হতে ৫৬ কিঃমিঃ দক্ষিণে প্রমত্ত যমুনার এক শাখা নদীর কোল ঘেঁষে বিরামপুর উপজেলার অবস্থান। বিরামপুর থানা সৃষ্টির পূর্বে হাকিমপুর, নবাবগঞ্জ ও ফুলবাড়ী থানার সমন্বয়ে এ অঞ্চল পরিচালিত হত। কথিত আছে সম্রাট আকবরের সময় বাংলার বারো ভুঁইয়াদের মধ্যে পাতরদাস নামক এক শক্তিশালী রাজা ছিলেন। তাঁর রাজধানী ছিল এই এলাকায়। রাজা পাতরদাস মোগল সেনাপতি বৈরাম খাঁর নিকট যুদ্ধে পরাজয় বরণ করেন। সেনাপতি বৈরাম খাঁর নামে এই এলাকার নাম হয় বিরামপুর।
নবাবগঞ্জ ও হাকিমপুর থানার ২টি করে ও ফুলবাড়ী থানার ৩টি ইউনিয়নের সমন্বয়ে ১৯৮১ সালের ৭ জুন বিরামপুর থানা গঠিত হয়। ১৯৮৩ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর তারিখে বিরামপুর থানাকে উপজেলায় উন্নীত করা হয়। ১৯৯০ সালে বিরামপুর উপজেলা সদরকে পৌরসভা ঘোষণা করা হয়। পৌরসভার কার্যক্রম শুরু হয় ১৫ জুন, ১৯৯৫ তারিখে।

Reply
13/03/2013 10:55am

Thank U zobayer vai 4 ur nice info, go ahead with ebiram

Reply
13/03/2013 10:53am

Thank U zobayer vai 4 ur very nice info, go ahead with ebiram

Reply



Leave a Reply

    স্বাগতম আপনাকে ই-বিরামপুর ব্লগে

    এখানে আপনি আপনার মনের সব কথা খুলে বলতে পারেন বিরামপুরকে নিয়ে।

    Archives

    July 2011

    Categories

    All